সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতি কার্যকর ২৭ ফেব্রুয়ারি

হ্যালোটুডে ডটকম: আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাত থেকে সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতি কার্যকর হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার দেওয়া যৌথ বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়, মধ্যপ্রাচ্যসহ বিভিন্ন দেশে সক্রিয় জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) ও আল-কায়েদার সঙ্গে সম্পৃক্ত গোষ্ঠী নুসরা ফ্রন্ট ওই যুদ্ধবিরতির বাইরে থাকবে।

সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতি কার্যকর করতে ১২ ফেব্রুয়ারি একটি সমঝোতায় আসে বিশ্বশক্তিগুলো। ওই সময় এক সপ্তাহের মধ্যে যুদ্ধবিরতি কার্যকর করার কথা বলা হয়েছিল। কিন্তু তা কার্যকর হয়নি। তাই নতুন পরিকল্পনা কার্যকর হওয়া নিয়েও সংশয় দেখা দিয়েছি।

এ সন্দেহ দানা বাঁধার বড় কারণ হলো গত রোববারের বোমা হামলা। সিরিয়ার হোমস ও দামেস্কে ওই হামলায় কমপক্ষে ১৪০ জন নিহত হয়।

সিরিয়ায় ২০১১ সালের মার্চে শুরু হওয়া বিক্ষোভে দুই লাখ ৫০ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। এক কোটি ১০ লাখ মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে। প্রাণ বাঁচাতে দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন ৪০ লাখ মানুষ। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দেশটিতে যুদ্ধবিরতি কার্যকর করা জরুরি হয়ে পড়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের দপ্তর হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতি কার্যকর করা নিয়ে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে ফোন করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। তাঁদের ওই ফোনালাপের পরই যুদ্ধবিরতির বিষয়ে যৌথ বিবৃতি দেয় রাশিয়া-যুক্তরাষ্ট্র।

ঘুমের মধ্যে যৌন স্বপ্ন দেখেন? জেনে নিন এর কারণ

হ্যালোটুডে ডটকম: রাতে ঘুমের মধ্যে যৌনতা নিয়ে স্বপ্ন দেখেছেন। কিন্তু সকালে উঠে তা নিয়ে বেশ লজ্জায় পড়ে গিয়েছেন। ভাবছেন এ বুঝি অপরাধ। কারও সঙ্গে শেয়ারও করতে পারছেন না সে সব কথা। কিন্তু গবেষণা বলছে, এই ঘটনা খুব স্বাভাবিক। যৌনতা নিয়ে স্বপ্ন দেখে লজ্জা না পেয়ে বরং জেনে নিন কোন স্বপ্নের কী মানে।

যৌনতা নিয়ে স্বপ্নে আসেন বস্!

গবেষণা বলছে, যৌন স্বপ্নে বস্ এলে অবচেতন মনে আপনার নেতৃত্ব দেওয়ার বাসনা প্রবল। এক কাজ করুন, বসের সঙ্গে আলাদা করে মিটিংয়ে বসুন। আলোচনা করুন কোম্পানির ভবিষ্যত নিয়ে।

বন্ধুর সঙ্গে স্বপ্নে যৌনতা

নিজের এই আচরণে অবাক হবেন না। হয়তো আপনার বন্ধুর মধ্যে এমন কোনও গুণ রয়েছে যা অবচেতনে আপনার মধ্যে একটা অন্য রকম ভাললাগা তৈরি করে।

স্বপ্নে আপনার ক্রাশ

ক্রাশের সঙ্গে যৌন সম্পর্কের ইচ্ছে গোপনে লালন করেন প্রায় প্রত্যেকেই। তাই এই স্বপ্ন খুব স্বাভাবিক।

প্রাক্তনকে নিয়ে যৌন স্বপ্ন

এখানে নিজের আচরণ সম্পর্কে একটু সতর্ক হোন। হতে পারে আপনার প্রাক্তনের সঙ্গে আপনার শারীরীক সম্পর্ক ছিল। কিন্তু যেহেতু সেই সম্পর্ক থেকে আপনারা দু’জনেই বেরিয়ে এসেছেন তাই সেটা নিয়ে আর না ভাবাই ভাল।

পরিবারের কাউকে নিয়ে যৌন স্বপ্ন দেখেন?

এই ক্ষেত্রেও নিজের জন্য অ্যালার্ম সেট করুন। পরিবারের সদস্যদের নিয়ে যৌন সম্পর্ক একদল চিকিত্সকের কাছে অসুস্থতার লক্ষণ।

মহাকাশচারীদের পোশাকের রঙ কমলাই হয় কেন জানেন?

ডেস্ক: মহাকাশচারী হওয়ার ইচ্ছে কখনও করেছে? অথবা কখনও মহাকাশচারীদের কথা ভেবেছেন? ওঁদের কী আপনার সব থেকে ভালো লাগে? আচ্ছা ওদের ওই উজ্জ্বল কমলা রঙের পোশাক কখনও মন দিয়ে দেখেছেন? ওই উজ্জ্বল কমলা রঙের পোশাক কেন মহাকাশচারীরা ব্যবহার করেন, সেটা নিয়ে কখনও ভেবেছেন? মানে আপনার মনেও তো হতে পারত যে, মহাকাশচারীরা কেন কমলা রঙের পোশাক না পরে নীল বা সবুজ রঙের পোশাক পরেন না!
আমেরিকানরা শুধু স্টাইল বা ফ্যাশনের জন্য মহাকাশচারীদের পোশাকের রঙ কমলা করবেন না। অথবা, দিলওয়ালের গেরুয়াতে তাঁরাও মজেছেন এমন ভাবার কোনও কারণ নেই। এর পিছনে যুক্তিও আছে। তা হলো, মহাকাশে সবথেকে ভালো ভাবে নজরে আসে যে রঙটা, সেটাই হল এই উজ্জ্বল কমলা। মহাকাশে অনেক সময়ই বিপদে পড়েন মহাকাশচারীরা। সেক্ষেত্রে তাঁদের জীবন বাঁচাতে, তাঁদের ঠিক করে দেখতে পাওয়াটাও দরকার। তাই মহাকাশচারীদের পোশাকের রঙ হয় উজ্জ্বল কমলা। একইরকমভাবে মহাকাশে সাদা রঙও দেখা যায়। তাই সাধারণত, এই দুই রঙের পোশাক পরেই মহাকাশে যান মহাকাশচারীরা।
অভিনেত্রীর কথায় অপমানিত হয়ে আত্মহত্যা অভিনেতার, গ্রেফতার অভিনেত্রী
ডেস্ক : ক দিন আগে ভূবনেশ্বরের এক জনপ্রিয় অভিনেতা ব্রিজ থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছিলেন। রনজিত্‍ পট্টনায়েক নামের সেই অভিনেতার রহস্য মৃত্যু ঘিরে ক দিন ধরেই নানা জল্পনা উঠে আসছিল। অবশেষে দেড় মাস পরেই অভিনেতার রহস্য মৃত্যুর কিনারা করে ফেলছে বলে দাবি করল পুলিস।

এক শো সেরে প্রিয়দর্শনী সামাল (সবাই চেনে জেসি নামে) নামের ওই অভিনেত্রীর সঙ্গে গাড়ি করে ফিরছিলেন অভিনেতা রনজিত্‍ (বেশিরভাগ মানুষ চেনেন রাজা নামে)। গাডি়তে রাজাকে ড্রাইভার ও ইভেন্ট ম্যানেজারের সামনেই খুব অপমান করেন জেসি। রাজা প্রথমে জেসিকে চুপ করতে বলেন। জেসি কিছুতেই থামতে রাজি হননি। চরম অপমানিত বোধ করে চলন্ত গাড়ি থেকে ব্রিজের ওপর থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন রাজা। অভিনেত্রী জেসিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যদিও জেসি নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি করছেন। জেসির পলিগ্রাফি টেস্ট করা হবে।

শহীদ মিনারে ফাঁকা গুলি ও বোমা বিস্ফোরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক ::: একুশের প্রথম প্রহরে যশোর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দেওয়া হলো না কারও। রাত ১২টা বাজার আগেই ফুল দেওয়া কেন্দ্র করে দু’পক্ষের ফাঁকা গুলি ও বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে শহীদ মিনার এলাকায়।

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাত পৌনে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এসময় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে পুরো এলাকাজুড়ে।

বিষয়টি জানান যশোর কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইলিয়াস হোসেন।

তিনি জানান, শহীদ মিনার এলাকায় বোমা বিস্ফোরণ ও ফাঁকা গুলির ঘটনা ঘটেছে। তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

শহীদ মিনার এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, পুলিশ ঘিরে রেখেছে পুরো এলাকা। কাউকে সেখানে যেতে দেওয়া হচ্ছে না।

জাতিসংঘের শুভেচ্ছা দূত হলেন ক্রিকেটার মাশরাফি

ডেস্ক ::: বাংলাদেশে ক্রিকেটের উজ্জল নক্ষত্র মাশরাফি বিন মর্তুজা। জীবনে অনেক চরাই উতরাই পার করলেও হার মানেননি। আজ তারই শক্তিশালী নেতৃত্বের রশি ধরে বিশ্ব ক্রিকেটের মাঠে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। কিন্তু এবার শুধু ক্রিকেটেই নয়, তার নৈপুণ্যে এবার বিশ্ব মানচিত্রেও বাংলাদেশের নাম উচ্চারিত হবে সম্মানের সঙ্গে। কারণ জাতিসংঘের শুভেচ্ছা দূত নির্বাচিত হয়েছেন টাইগার দলপতি মাশরাফি।

সাকিব আল হাসানের পর দ্বিতীয় বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে জাতিসংঘের শুভেচ্ছা দূত হলেন তিনি।

আনন্দদায়ক হলেও যৌন মিলনের সময়ে নারীদের উপরে থাকাটা কি উচিত? (ভিডিওসহ)

ডেস্ক ; জনৈক পাঠক জানতে চেয়েছেন, আনন্দদায়ক হলেও যৌন মিলনের সময়ে নারীদের উপরে থাকাটা কি উচিত?

সহবাসের স্বাভাবিক পন্থা হলো এই যে, স্বামী উপরে থাকবে আর স্ত্রী নিচে থাকবে। প্রত্যেক প্রাণীর ক্ষেত্রেও এই স্বাভাবিক পন্থা পরিলক্ষতি হয়। সর্বপরি এ দিকেই অত্যন্ত সুক্ষভাবে ইঙ্গিত করা হয়েছে আল কুরআনে। আয়াতের অর্থ হলোঃ
“যখন স্বামী -স্ত্রীকে ঢেকে ফেললো তখন স্ত্রীর ক্ষীণ গর্ভ সঞ্চার হয়ে গেলো।”
আর স্ত্রী যখন নিচে থাকবে এবং স্বামী তার উপর উপুড় হয়ে থাকবে তখনই স্বামীর শরীর দ্বারা স্ত্রীর শরীর ঢাকা পড়বে। তাছাড়া এ পন্থাই সর্বাধিক আরামদায়ক। এতে স্ত্রীরও কষ্ট সহ্য করতে হয়না এবং গর্ভধারণের জন্যেও তা উপকারী ও সহায়ক। বিখ্যাত চিকিতসা বিজ্ঞানী বু-আলী ইবনে সীনা তার অমর গ্রন্থ “কানুন” নামক বইয়ে এই পন্থাকেই সর্বোত্তম পন্থা হিসেবে উলে­খ করেছেন এবং ‘স্বামী নিচে আর স্ত্রী উপরে’ থাকার পন্থাকে নিকৃষ্ট পন্থা বলেছেন। কেননা এতে পুংলিংগে বীর্য আটকে থেকে দুর্গন্ধ যুক্ত হয়ে কষ্টের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তাই অবশ্যই আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে যেন আনন্দঘন মুহুর্তটা পরবর্তিতে বেদনার কারণ হয়ে না দাড়ায়।

পক্ষান্তরে, যৌন মিলনের সময় নারীর ওপরে থাকা অনেকের কাছেই আনন্দদায়ক হলেও নতুন গবেষণা তথ্যানুযায়ী এটি মারাত্মক ক্ষতির কারণ হতে পারে। গবেষণার তথ্যানুযায়ী, মিলনের সময় নারী ওপরে থাকলে গোপানাঙ্গের ক্ষতি হতে পারে। সম্প্রতি ব্রাজিলের গবেষকদের প্রকাশিত অ্যাডভান্সেস ইন ইউরোলজি-তে প্রকাশিত গবেষণা ফলাফলে জানা গেছে এ তথ্য।

গবেষকদের মতে যৌনতায় সবচেয়ে বিপজ্জনক অবস্থান হলো ‘কাউগার্ল’ নামে পরিচিত একটি পজিশন। অনেকে একে ‘হর্সরাইডিং’-ও বলে থাকেন। এ পজিশনে নারী ওপরে থাকে। গবেষকরা জানিয়েছেন, ‘কাউগার্ল’ পজিশনে যৌনতার সময় আঘাত পাওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যায়। এ অবস্থানে পুরুষাঙ্গের ক্ষতির সম্ভাবনাও সবচেয়ে বেশি থাকে।

কাউগার্ল পজিশনে মূল সমস্যাটি হয় নিয়ন্ত্রণের ওপর। এ ক্ষেত্রে নারীর দেহের ওজন পুরুষাঙ্গের ওপর পড়ে, যার ফলে অনেক সময় সঠিকভাবে চাপ প্রয়োগ হয় না। ফলে এদিক-ওদিক হয়ে দুর্ঘটনা ঘটতে দেখা যায়। অন্যদিকে সাধারণভাবে প্রচলিত যৌনতার আসনগুলো কিছুটা নিরাপদ। বিশেষ করে যে আসনে পুরুষের ওপর পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ থাকে, তাই একে নিরাপদ বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

যৌনতার সময় যেসব আঘাত পাওয়ার ঘটনা ঘটে, সেগুলো এ গবেষণায় তালিকাবদ্ধ করা হয়। গত ১৩ বছরের পরিসংখ্যান এতে বিবেচনা করা হয়। গবেষণায় দেখা যায়, সবচেয়ে বেশি আঘাতের ঘটনা ঘটে কাউগার্ল পজিশনে। এ অবস্থানে প্রায় অর্ধেক আঘাত পাওয়ার ঘটনা ঘটে। এরপরের অবস্থান রয়েছে বহুল প্রচলিত ‘ম্যান অন টপ’ অবস্থান। এ অবস্থায় যৌনতায় ২১ ভাগ আঘাত পাওয়ার ঘটনা ঘটে।

শত নারী তারকার ফাঁস হওয়া নগ্ন ছবির প্রদর্শনী (ভিডিওসহ)

হ্যালোটুডে ডেস্ক : গত কয়েকদিন ধরে যে বিষয়টি বিশ্বজুড়ে ঝড় তুলেছে তা হলো অনলাইনে অসস্কারজয়ী অভিনেত্রী জেনিফার লরেন্সসহ প্রায় শত নারী তারকার নগ্ন ছবি ফাঁস। এবার খোলাখুলিই দেখানো হবে এই ছবিগুলো।

ফ্লোরিডার সেন্ট পিটসবার্গে আয়োজন করা হচ্ছে ‘নো ডিলিট’ নামের এক সমকালীন চিত্র প্রদর্শনী। আর সেখানে যে শিল্পকর্মগুলো প্রদর্শিত হবে সেগুলোর বিষয়বস্তু বিভিন্ন তারকার অনলাইনে ফাঁস হওয়া নগ্ন ছবি।

প্রদর্শনীর আয়োজন করা হচ্ছে পাবলিসিস্ট এবং শিল্প ব্যবসায়ী কোরি অ্যালেনের প্রতিষ্ঠান ‘কোরি অ্যালেন কন্টেম্পোরারি আর্ট’-এর পক্ষ থেকে। লস এঞ্জেলসের সাড়া জাগানো স্ট্রিট-আর্ট শিল্পী, যিনি তার ছদ্মনাম ‘এক্সভিএএলএ’ দিয়েই পরিচিত, তার ‘ফিয়ার গুগল’ প্রচারণার অংশ হিসেবেই করা হবে প্রদর্শনীটি।

এ ব্যাপারে কোরি অ্যালেন বলেন, “এক্সভিএএলএ-এর তারকাদের ফাঁস হয়ে যাওয়া ছবি দিয়ে তৈরি শিল্পকর্ম এবং তার ‘ফিয়ার গুগল’ প্রচারণা মানুষের ব্যক্তিগত গোপনীয়তার উপর ডিজিটাল হস্তক্ষেপ নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই চলে আসা বিতর্কের বিষয়টিকে জোরদার করেছে।”

বিষয়টি ব্যাখ্যা করে তিনি আরও বলেন, “এই প্রদর্শনীর পেছনের উদ্দেশ্য হলো, আজকের দিনে আমরা আসলে কেমন- সেটা তুলে ধরা। ডিজিটাল দুনিয়ায়, আমরা হচ্ছি প্রযুক্তির ‘ব্যবহারকারী’। অথচ দিনশেষে আমরা নিজেরাই হয়ে যাই ‘ব্যাবহৃত সামগ্রী’!”

প্রদর্শনীতে দেখানো হবে শিল্পীর গত সাত বছর ধরে অনলাইনে ফাঁস হওয়া তারকাদের ব্যক্তিগত ছবি দিয়ে তৈরি শিল্পকর্মগুলো। সবগুলো ছবিই কোনো না কোনো সময়ে হ্যাকার অথবা পাপরাজ্জিরা তারকাদের গোপনীয়তা লঙ্ঘন করে প্রকাশ করেছেন। এর সবই প্রমাণ আকৃতির ক্যানভাসে ছাপচিত্রের মাধ্যমে তুলে ধরা হবে।

প্রদর্শনীতে জেনিফার লরেন্সসহ স্থান পাবে কেইট আপটন, ব্রিটনি স্পিয়ার্স, স্কারলেট জোহানসনসহ খ্যাতনামা সব তারকাদের ছবি। সবগুলো ছবিতেই তারকদের শরীরের বিশেষ স্থানসমূহ ঢেকে দেওয়া হবে ‘ফিয়ার গুগল’ লেখা সম্বলিত স্টিকার দিয়ে।

অক্টোবরের ত্রিশ তারিখে শুরু হবে প্রদর্শনীটি।

গাজীপুরে দিনের বেলায় জঙ্গলে রমরমা দেহব্যবসা… (ভিডিওসহ)

ডেস্ক : যদি আপনাকে বলা হয় বনে কোন পশু কিংবা জীবজন্তু থাকে না। বনের প্রতিটি জঙ্গলের চিপায় টাকা থাকে তবে কি আপনি অবাক হবেন? আপনি অবাক হলেও ঠিক এমনই ঘটছে দেশের অত্যান্ত পরিচিত একটি জায়গায়। নাম গাজীপুর ভাওয়াল উদ্যান।

দেশের উন্মুক্ত পতিতালয় গুলোতে পতিতাবৃত্তি অনেকটা লোক চক্ষুর আড়ালে সেরে নেয়ার জন্য গভীর রাতকে বেছে নেয়া হলেও গাজীপুরের এই বিনোদন কেন্দ্রের নামের আড়ালে গড়ে ওঠা উন্মুক্ত পতিতালয়ে শুধু রাত বললে ভুল হবে দেহ ব্যবসা চলে ভর দুপুরেও।

এবার এমনই একটি বাস্তব ঘটনাকে কেন্দ্র করে তৈরি করা হয়েছে এই ভিডিও নিউজ।

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন।

সেলফি তোলা এবং একটি ঠাণ্ডা মাথায় ভয়ংকর খুনের গল্প

হ্যালোটুডে ডটকম: এক্কেবারে ঠান্ডা মাথায় খুন! প্রথমে প্রেমিকা নিয়ে ঘুরতে যাওয়া। সেখানে গিয়ে দু’জনে মিলে সেল্‌ফি তোলা। তার পর প্রেমিকার গলা কেটে খুন করা। শুধু তাই নয়, খুন করার পর সেল্‌ফির ছবিকে হোয়াট্‌সঅ্যাপের ডিসপ্লে পিকচারে সেট করা— সব মিলিয়ে এক দম পরিকল্পিত খুন।

ভারতের দেহরাদূনের ঘটনা। অভিযুক্ত প্রেমিক আশিস কুমার। বয়স ২৭। পুলিশ জানিয়েছে, গুরপ্রীত কাউর (৩০) নামে এক নারীর সঙ্গে প্রণয়ের সম্পর্ক গড়ে ওঠে আশিসের। গুরপ্রীত ও তাঁর স্বামী গুরজিত আশিসের বাড়িতেই ভাড়া থাকতেন পাঁচ বছর ধরে। গুরপ্রীতের স্বামী এক জন ব্যসায়ী। সে কারণে হামেশাই তাঁকে বাড়ির বাইরে যেতে হতো। এর মধ্যেই বাড়ির মালিকের ছেলে আশিসের সঙ্গে তাঁর প্রণয়ের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মাস দুয়েক আগে গুরপ্রীতরা দেহরাদূনের রেস্ট ক্যাম্প এলাকায় চলে যান। সেখান থেকেই বাধে বিপত্তি। গত শনিবার প্রেম নগরের একটি চা বাগানে গুরপ্রীতকে নিয়ে যান আশিস। সেখানে বেশ কিছু ক্ষণ সময় কাটান দু’জনে। তাঁদের মধ্যে কথাবার্তাও হয়। আশিস গুরপ্রীতকে নিয়ে তাঁর মোবাইলে ফোনে সেল্‌ফিও তোলেন। গুরপ্রীত ঘুণাক্ষরেও টের পাননি তাঁর কী হতে চলেছে। হাসতা হাসতে গুরপ্রীতকে হাঠাত্ই শ্বাসরোধ করে মারার চেষ্টা করেন আশিস। মৃত্যু নিশ্চিত করতে পকেট থেকে ধারাল ছুরি বের করে গুরপ্রীতের গলায় চালিয়ে দেন তিনি। গুরপ্রীতের চিত্কার শুনে স্থানীয় বাসিন্দারা দৌড়ে আসেন। তাঁদের আসতে দেখে গুরপ্রীতকে ফেলে রেখে পালান আশিস। গুরপ্রীতকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিত্সকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এই ঘটনার পর আশিসের খোঁজে তল্লাশি চালায় দেহরাদূন পুলিশ। মুসৌরির একটি হোটেলের ঘর থেকে হাতের শিরা কাটা অবস্থায় উদ্ধার করা হয় আশিসকে। এক পুলিশকর্মীর কথায়, ‘ঠিক সময়ে না পৌঁছলে ছেলেটি মরে যেত। প্রচুর রক্তপাত হয়েছে।’

হোটেলের কর্মীরা এই ঘটনা দেখে স্তম্ভিত হয়ে গিয়েছেন। তাঁরা জানিয়েছেন, ছেলেটিকে দেখে বোঝাই যায়নি যে সে খুন করে এসেছে। হোটেল ভাড়া নেওয়ার সময় বেশ হাসিখুশি ছিল।

অন্য দিকে, হাসপাতালের বেডে শুয়ে আশিস বলেন, ‘এই কাজের জন্য মোটেই অনুতপ্ত নই। বেঁচে আছি এটাই আমার বিরক্তি। আমার মরে যাওয়াই উচিত ছিল।’

প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশের অনুমান, সন্দেহের বশেই গুরপ্রীতকে খুন করেছেন আশিস। তাঁর ধারণা ছিল গুরপ্রীতের সঙ্গে আরও অনেকের সম্পর্ক রয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেই আশিসকে গ্রেফতার করা হবে।

বিয়ের টোপ দেখিয়ে নাবালিকাকে দেহব্যবসায় বাধ্য করা হল! (ভিডিওসহ)

ডেস্ক: প্রথমে পরিচয়। তারপর বিয়ের টোপ দেখিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় দিল্লিতে। দেখানো হয় অনেক স্বপ্ন। এরপর দিল্লি পৌঁছে পাল্টে যায় তাদের রূপ। কপালে বন্দুক ঠেকিয়ে বাধ্য করা হয় দেহব্যবসায়। পুলিসের কাছে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করলেন দুই নাবালিকা। গত ছাব্বিশে জানুয়ারি থেকে নিখোঁজ ছিলেন তাঁরা। তদন্তে নেমে পড়ে পুলিশ। কল রেকর্ড দেখে দিল্লিতে তাঁদের উপস্থিতি জানতে পারে লেক থানার পুলিস। সেই অনুযায়ী পুলিসের একটি দল দিল্লি গিয়ে দুই নাবালিকাকে উদ্ধার করে। গ্রেফতার হয় চার অভিযুক্ত। আদালতে গোপন জবানবন্দি দিয়েছেন উদ্ধার দুই নাবালিকা। তার ভিত্তিতে গণধর্ষণের মামলা রুজু করবে পুলিশ ।

শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে বিমানে ঘুরাবে ইউএস-বাংলা !

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে বিমান ভ্রমণের সুযোগ নিয়ে এসেছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স।

বেসরকারি এই বিমান পরিবহন সংস্থার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এক হাজার শিক্ষার্থীর জন্য এই সুবিধা দেবেন তারা। আগামী ২৬ মার্চ শিক্ষার্থীদের নিয়ে উড়বে প্রথম ফ্লাইট।

স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের নিয়মিত শিক্ষার্থীরা এই সুবিধা পাবেন। এজন্য ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের নির্ধারিত ফরম পূরণ করে বিভাগীয় শিক্ষকের সুপারিশসহ জমা দিতে হবে।

ফেইসবুকে www.facebook/usbair লিঙ্কে গিয়ে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

৭৬ আসনের তিনটি ড্যাশ ৮-কিউ৪০০ এয়ারক্রাফট রয়েছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের। ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম, সিলেট, কক্সবাজার, যশোর, সৈয়দপুর, রাজশাহী ও বরিশাল রুটে প্রতিদিন ফ্লাইট পরিচালনা করছে তারা।
উৎসঃবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

সুন্দরী মেয়ে বিয়ে করলে আমেরিকান ভিসা ফ্রি

জাকির, আমান, শাহিন, আমির, মানিক আর মল্লিক । তারা বন্ধু নয় । কিন্তু একটা যায়গায় মিল আছে তাদের সবার । সেটা হল এদের প্রত্যেকর’ই আছে আকাশ ছোঁয়া স্বপ্ন!

সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে এরা সবাই একই পথে হেঁটেছিল! সবাই স্বপ্ন দেখেছিল আমেরিকা প্রবাসী পাত্রী বিয়ে করে সেখানে পাড়ি জমাবে!

গাজিপুর এর শাহিন রহমান । বয়স ৫০ । বিবাহিত কিন্তু পাত্র চাই বিজ্ঞাপন দেখে তারপর যাকে দেখলেন তাতে সেদিনই হয়ত মনে মনে আমেরিকার অর্ধেক পথে চলে গিয়েছিলেন তিনি । তারপর সেই মেয়েটির সাথে শাহিন রহমান এর কি হয়েছিল? জানতে চান? জেনে নিন তাহলে বিস্তারিত…

ইউটিউবে ভাইরাল শাকিব-পরীমনির ‘ঘনিষ্ঠ’ দৃশ্য ! ( ভিডিওতে দেখুন পুরো দৃশ্যটি )

ইউটিউব এখন মেতে রয়েছে শাকিব-পরীর টিজারে! ইউটিউবে মুক্তির মুহূর্তের মধ্যেই যা ভাইরাল হয়ে গেছে!

ঢাকাই ছবি ‘ধূমকেতু।’ কয়েকদিন আগেই যার টিজার মুক্তি পেয়েছে। ত্রিকোণ প্রেমের এই ছবির টিজার মুক্তি পাওয়ার মুহূর্তের মধ্যেই তা ১ লক্ষ ৩০ হাজারেরও বেশি বার দেখে ফেলেছেন দর্শকেরা। মুক্তির আগে থেকেই তো বিতর্ক শুরু হয়ে গিয়েছিল ছবিটি নিয়ে। শাকিব খান এবং পরীমনি অভিনীত এই টিজারে তাঁদের ঘনিষ্ঠ মুহূর্ত রয়েছে।

ছবি মুক্তির তারিখ এখনও স্থির করেননি পরিচালক শফিক হাসান। তবে টিজারে সিনেমা প্রেমীদের ভিড়ের মতো সিনেমা হলেও ভিড় উপচে পড়বে কি না সেটাই দেখার অপেক্ষা।

চারটি বড় চমক নিয়ে ভারতের বিপক্ষে লড়াইয়ে নামছে বাংলাদেশ

ভারতের বিপক্ষে শুরু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশের কঠিন লড়াই। বাংলাদেশ ও ভারতের ম্যাচ বরাবরই কঠিন লড়াইয়ের

এই কঠিন ম্যাচে চারটি বড় চমক নিয়ে মাঠে নামতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। মিরপুর স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যেকার লড়াই দিয়ে যাত্রা শুরু করছে এশিয়াকাপ।

এই লড়াইয়ের দিকে তাকিয়ে ভারত ও বাংলাদেশের কোটি কোটি ক্রিকেটগাগল। বাংলাদেশ টিমে বড় চমকের নাম মুস্তাফিজ। পুরোপুরি ফিট তিনি।

এর আগে ভারতকে একাই গুটিয়ে দিয়েছেন তিনি। এই মুস্তাফিজই বাংলাদেশের সেরা চমক। তবে ভারত মোটেই কম অনুশীলন করছে এই কাটারকে নিয়ে।

বাংলাদেশ দলে দ্বিতীয় চমকের নাম আবু হায়দার রনি। কয়েকদিন আগে দলে ডাক পেয়েই এশিয়াকাপ খেলতে যাচ্ছেন তিনি।

দলের তৃতীয় চমক হিসাবে থাকবেন এর আগে ভারতের বিপক্ষে সেঞ্চুরি হাঁকানো সৌম্য সরকার। অন্যজন দলেন দেশের টি-টোয়েন্টি স্পেশালিষ্ট সাব্বির রহমান।

সবারই প্রথম এশিয়াকাপ হতে যাচ্ছে এবার। এই তারকারাসহ নতুনদের মধ্যেও বাজিমাত দেখাতে পারেন দুই একজন।

২৪ ফেব্রুয়ারি বিকেল দেড়টার দিকে মিরপুরের জাতীয় স্টেডিয়ামে শুরু হওয়ার কথা ।

স্থায়ীভাবে ত্বক ফর্সা করার দুটি প্রাকৃতিক উপায় !

যুগে যুগে মানুষ নিজের সৌন্দর্য নিয়ে ভেবেছে। নিজেকে যাতে অন্যের কাছে আরও বেশি আকর্ষণীয় করে তোলা যায়, সেজন্য চেষ্টার ত্রুটি রাখেন না সৌন্দর্য সচেতনমাত্রে

সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে চলা ব্যস্ত জীবনে সবসময় নিজের যত্ন ঠিকমতো নেওয়া খুবই মুশকিল। তা ছাড়া দিনদিন পরিবেশও দূষণযুক্ত হয়ে পড়ছে। এতে করে নিজের সৌন্দর্য ধরে রাখা আসলেই ভীষণ মুশকিল। অথচ নিজেকে সবসময় সুন্দর ও আকর্ষণীয় রাখাটা যেন জীবনেরই একটা অংশ। আধুনিকযুগে এ কথার সত্যতা অনস্বীকার্য। নারী বা পুরুষ, একটি সুন্দর মুখের কদর কিন্তু সর্বত্রই। আর তাই নিজেকে সুন্দর দেখাতে কে না চায়!

সেই আদি যুগ থেকেই গায়ের রং নিয়ে মানুষের নানান চিন্তা। অনেকেরই কাম্য একটি ফর্সা সুন্দর ত্বকের। রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে, শারীরিক অসুস্থতা, দীর্ঘসময় রান্নাঘরে কাজ করা ইত্যাদি নানান কারণে ত্বক হারিয়ে ফেলে স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা। হয়ে যায় কালচে ও বিবর্ণ। রং ফর্সাকারী ক্রিমের কদর তাই কমে না কখনোই। কিন্তু আসলে সত্যিই কি এসব ক্রিমে গায়ের রং ফর্সা হয়? মুখের রং হয়তো একটুখানি উজ্জ্বল হয়, কিন্তু পুরো শরীরের ত্বক? সেটা কিন্তু আসলে হয়ে ওঠে না।

পার্লারগুলোতে আছে রঙ ফর্সা করার নানান আয়োজন। যেমন স্কিন ব্লিচ, ফেয়ার পলিশসহ আরও কত কী। কিন্তু জেনে রাখুন, এই সবই আপনার ত্বকের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। তাহলে কী করবেন?
প্রাকৃতিক উপায়ে এবং ঘরোয়াভাবে গায়ের রং ফর্সা করার রয়েছে সহজ উপায়। শুধু তাই নয়, এভাবে যে ফর্সা রঙটা আপনি পাবেন সেটা হবে স্থায়ী। সৌন্দর্য সেটাই, যা ভেতর থেকে আসে। আসুন জেনে নেওয়া যাক প্রাকৃতিকভাবে রঙ ফর্সা করার দুটি পদ্ধতি।

দুধ ও কাঁচা হলুদ :
রূপচর্চায় দুধ ও কাঁচা হলুদের ব্যবহার যুগ যুগ ধরে হয়ে আসছে। প্রতিদিন এক গ্লাস উষ্ণ গরম দুধে আধা চা চামচ কাঁচা হলুদ বাটা মিশিয়ে পান করুন। এভাবে পান করতে না পারলে এর সঙ্গে মধু মিশিয়ে নিন। নিয়মিত হলুদ মেশানো দুধ পান করলে আপনার রং হয়ে উঠবে ভেতর থেকে ফর্সা।
দুধে কাঁচা হলুদ বাটা না মিশিয়ে করতে পারেন আরেকটি কাজ। দেড় ইঞ্চি সাইজের এক টুকরো হলুদ নিন। তারপর টুকরো করে কেটে এক গ্লাস দুধে দিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে নিন। দুধ গাঢ় হলুদ রঙ ধারণ করলে পান করুন। এভাবে প্রতিদিন একবার করে পান করতে থাকুন।

কাঁচা হলুদ :
শুধু দুধের সঙ্গে নয়, বাহ্যিক রূপচর্চাতেও হলুদ আপনার রঙ ফর্সা করতে সহায়তা করবে। বিশেষ করে কালচে ছোপ দূর করতে এই পদ্ধতি খুব কার্যকর।
উপকরণ : দুধ ৩ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, এবং কাঁচা হলুদ বাটা ১ চা চামচ।

কীভাবে ব্যবহার করবেন?
দুধ, লেবুর রস ও হলুদ বাটা একসঙ্গে মিশিয়ে একটি মিশ্রন বা পেস্ট তৈরি করুন। সারা মুখে এই পেস্ট ভালভাবে লাগিয়ে প্যাকটি শুকনো হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানিতে পরিষ্কার করে ধুয়ে নিয়ে নরম তোয়ালে দিয়ে আলতো করে মুছে নিন। গরম পানিতে মুখ ধোবেন না এবং অন্তত ১২ ঘণ্টা রোদে যাবেন না। নিয়মিত ব্যবহারে আপনার ত্বকের রং হয়ে উঠবে ফর্সা, কোমল, দাগমুক্ত ও সুন্দর।
তাহলে আর দেরি কেন? বাড়িতে বসে প্রাকৃতিক উপায়ে নিজে থেকে হয়ে উঠুন ফর্সা, সুন্দর।