প্রেম ভালোবাসার অপরাধে সৌদি আরবে বাংলাদেশি যুবককে কি নিষ্ঠুর নির্যাতন (ভিডিওসহ দেখুন)

প্রেম ভালোবাসার অপরাধে সৌদি আরবে বাংলাদেশি যুবককে কি নিষ্ঠুর নির্যাতন (ভিডিওসহ দেখুন)

কম্পিউটারে বন্ধুর সাথে নিজের স্ত্রীর গোপন ভিডিও দেখে স্বামী বিদেশ ফেরত চলে গেলেন (ভিদেওতে দেখুন)

কম্পিউটারে বন্ধুর সাথে নিজের স্ত্রীর গোপন ভিডিও দেখে স্বামী বিদেশ ফেরত চলে গেলেন (ভিদেওতে দেখুন)

জেনে নিন, ফরমালিন দেয়া ফল চিনবার সহজ উপায় !

ডেস্ক: আমের মৌসুম। মধুমাসে রসালো ফলের ঘ্রাণে ম ম করবে চারপাশ। তবে কিছু অসৎ মানুষের কারণে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে এসব ফলমূলের প্রাকৃতিক স্বাদ ও ঘ্রাণ। ফলের সঙ্গে ফরমালিন মেশানোর কারণে, সেসব খেয়ে মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকির মধ্যে পড়ছেন সাধারণ ক্রেতারা। তাই ফল কেনার আগে পরীক্ষা করে নিতে হবে তা ফরমালিনমুক্ত কি না। চলুন, জেনে নেয়া যাক ফরমালিন দেয়া আম কীভাবে চিনবেন-

১. প্রথমেই লক্ষ্য করুন যে আমের গায়ে মাছি বসছে কিনা। কেননা ফরমালিনযুক্ত আমে মাছি বসবে না।

২. আম গাছে থাকা অবস্থায়, বা গাছ পাকা আম হলে লক্ষ্য করে দেখবেন যে আমের শরীরে এক রকম সাদাটে ভাব থাকে। কিন্তু ফরমালিন বা অন্য রাসায়নিকে চুবানো আম হবে ঝকঝকে সুন্দর।

৩. কারবাইড বা অন্য কিছু দিয়ে পাকানো আমের শরীর হয় মোলায়েম ও দাগহীন। কেননা আম গুলো কাঁচা অবস্থাতেই পেড়ে ফেলে ওষুধ দিয়ে পাকানো হয়। গাছ পাকা আমের ত্বকে দাগ পড়বেই।

৪. গাছপাকা আমের ত্বকের রঙে ভিন্নতা থাকবে। গোঁড়ার দিকে গাঢ় রঙ হবে, সেটাই স্বাভাবিক। কারবাইড দেয়া আমের আগাগোড়া হলদেটে হয়ে যায়, কখনো কখনো বেশি দেয়া হলে সাদাটেও হয়ে যায়।

৫. হিমসাগর ছাড়াও আরও নানান জাতের আম আছে যারা পাকলেও সবুজ থাকে, কিন্তু অত্যন্ত মিষ্টি হয়। গাছপাকা হলে এইসব আমের ত্বকে দাগ পড়ে। ওষুধ দিয়ে পাকানো হলে আমের শরীর হয় মসৃণ ও সুন্দর।

৬. আম নাকের কাছে নিয়ে ভালো করে শুঁকে কিনুন। গাছ পাকা আম হলে অবশ্যই বোটার কাছে ঘ্রাণ থাকবে। ওষুধ দেয়া আম হলে কোনও গন্ধ থাকবে না, কিংবা বিচ্ছিরি বাজে গন্ধ থাকবে।

৭. আম মুখে দেয়ার পর যদি দেখেন যে কোনও সৌরভ নেই, কিংবা আমে টক/ মিষ্টি কোনও স্বাদই নেই, বুঝবেন যে আমে ওষুধ দেয়া।

৮. আম কেনা হলে কিছুক্ষণ রেখে দিন। এমন কোথাও রাখুন যেখানে বাতাস চলাচল করে না। গাছ পাকা আম হলে গন্ধে মৌ মৌ করে চারপাশ। ওষুধ দেয়া আমে এই মিষ্টি গন্ধ হবেই না।

জেনে নিন, মেয়েদের সেক্স তোলার সহজ উপায়

কটা মেয়েকে সেক্স এর জন্য রেডি করা বা হর্ণি করার জন্য প্রথমে যে পদ্ধতিটা প্রয়োগ করা উচিত বা করবেন তা হল স্পর্শ৷ এটিকে শুনতে যেন তেন ব্যপার মনে হলেও এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ঠিকমত স্পর্শ করতে পারলে আপনি খুব সহজেই কোনো মেয়েকে কামুকি করে তুলতে পারবেন৷ প্রথমে অবশ্যই আপনাকে আপনার মনের মধ্য থেকে ভয় টা দূর করতে হবে৷ মনে ভয় থাকলে এগুলো অনেক কঠিন হয়ে যাবে৷ যার সাথে করার উদ্দেশ্য আপনার, তাকে আপনি বিভিন্ন সময় টাচ করুন৷ এটি কিন্তু নরমাল হাত ধরা না। চেষ্টা করবেন কাঁধের দিকটায় বেশি ধরার। ধরে রেখে দিতে হবে এমন না, ধরুন – ছাড়ুন।

বিভিন্ন কথা প্রসঙ্গে, অবচেতন ভাবে ভান করে ধরুন। খুব ভাল হয় যদি দু – তিন বার পিঠের দিকের ব্রা টা স্পর্শ করেন জামার উপর দিয়ে। এটি তাকে যথেষ্টই হর্নি করবে। এসময় যদি একটু ফ্লার্ট করেন তাহলে আরো ভাল হয়। মেয়ের সাথে ভাল ফ্রেন্ডলি রিলেশন থাকলে গালে কিস করবো ইত্যাদি মজা করার স্টাইলে বলেও তাকে নিজের দিকে টান দিন।

চেষ্টা করবেন না তার বুকের দিকে হাত দেওয়ার৷ তবে গলা,পিঠ এগুলো ছাড়বেন না। খেয়াল করুন সে এগুলোর প্রেক্ষিতে কেমন আচরণ করে। যদি অন্যরকম হাসি বা একটু ইতস্তত বোধ থাকে তার মধ্যে তো ধরে নেবেন আপনি ঠিক পথেই আছেন। কিন্তু যদি এমন হয় যে সে দূরে সরে যায় আপনি ধরতে গেলে, কথা ঘোরায় তবে এভাবে চেষ্টা করবেন না। মাঝে মধ্যে তার বুকের দিকে তাকিয়ে থাকবেন তাকে বুঝতে দিয়েই। লজ্জা বা ভয় পাবেন না৷

মনে রাখবেন, পৃথিবী ব্যাপী সবচেয়ে সহজে এবং সুন্দরভাবে মেয়েদের সেক্স তোলা যায় স্পর্শ এর মাধ্যমে। এটিতেই সবচেয়ে সহজে সফল হন বেশিরভাগ মানুষ৷

ভিডিওটি নিজ দায়িত্বে দেখবেন দেখার পর যদি কেউ রাগে আত্মহত্যা করেন এর জন্য আমি দায়ি না !

ভিডিওটি নিজ দায়িত্বে দেখবেন দেখার পর যদি কেউ রাগে আত্মহত্যা করেন এর জন্য আমি দায়ি না !

শুটিংয়ে হঠাৎ খুলে গেল আনুশকার পোশাক! ফেসবুক ও ইউটিউবে তোলপাড় (ভিডিওতে দেখুন)

বলিউডের অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা অভিষেক করেছিলেন শাহরুখ খানের বিপরীতে ‘রাব নে বানা দি জোড়ি’ ছবি দিয়ে। বাবার পছন্দে বিয়ে করে সংসার করা এক মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। তার অভিনয় প্রশংসিত হয়েছে বিটাউনে। কিন্তু এর পরের সব ছবিতে যেন ছিলেন এক অন্য আনুশকা। প্রায় সব ছবিতে তিনি।
তবে নায়িকাদের খোলামেলা দৃশ্যে অভিনয়ের সময় কোন না কোন সমস্যা হয়ই। তাছাড়া শুটিংয়ের সময় পোশাক নিয়ে বেশ বিব্রত অবস্থায় পরেছেন অনেক নায়িকাই

তেমনি একটি ভিডিওতে দেখা যায় একটি গানের দৃশ্যে শুটিংয়ের সময় আনুশকার পরে থাকা পোশাকের উপরের অংশ খুলে যায়। পরে অন্যপাশ থেকে এক ফটোগ্রাফার এসে তার পোশাক ঠিক করে দেয়। কিন্তু তাতেও আনুশকা বেশ সচ্ছল। হাসিমুখেই সেটি মানিয়ে নিয়েছেন তিনি। কিছুটা সাহসীও বটে।

সবায় এই ভিডিওটি দেখে আশা করি কিছু বুজতে পারবেন! জামাটা আরত্ত একটু টাইট হলে ভাল হতো ! (ভিডিওতে দেখুন কি করছে)

সবায় এই ভিডিওটি দেখে আশা করি কিছু বুজতে পারবেন! জামাটা আরত্ত একটু টাইট হলে ভাল হতো ! (ভিডিওতে দেখুন কি করছে)

বিয়ের শাড়ি পরেই মেয়েটি জড়িয়ে পড়ে দেহ ব্যবসায় (ভিডিওসহ দেখুন)

সমান অধিকারের কথা বিভিন্নভাবে বিভিন্ন আইন, তবে.

ভারতে বিয়ের পর নানা বঞ্চনার শিকার হয় নারীরা। অনেক সময় পুরুষরা তাদের স্ত্রীদের দিকে ফিরেও তাকায় না, সময় দেয়না। ঠিকভাবে মূল্যায়নও করেনা। এজন্য ভেঙ্গে যায় অনেক সম্পর্ক।

যেগুলো টিকে থাকে তাও ঠিক ভালোবাসার বন্ধনে নয়, পরিবারের দিকে তাকিয়ে হয়তো মুখ বুজে সব সহ্য করে যায় নারীরা। নারীদের এমন বঞ্চনা নিয়ে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র তৈরি করেছে অনিকেট চন্দ্রনিকান্ত নামে এক ভারতীয়। ‘

‘বিয়ের শাড়ি’ নামের এই চলচ্চিত্রে তিনি একটি দম্পতির জীবন ও নারীর অসহায় পরিণতির কথা তুলে ধরেন।

এতে দেখা যায়,

বিয়ের পর থেকেই স্ত্রীকে অবহেলা করতে থাকে রাঘাভ নামের একজন। মেয়েটি অনেক চেষ্টা করেও তাদের সম্পর্ক ঠিক করতে পারেনা। পরে তার বিয়ের শাড়ি পরেই মেয়েটি জড়িয়ে পড়ে দেহ-ব্যবসায়। এভাবেই এগিয়ে চলে গল্প।

সরাসরি ভিডিওতে দেখে নিন মেয়েরা খেপে গেলে কতটা ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারে !! যা আপনার কল্পনাকে হার মানাবে

সরাসরি ভিডিওতে দেখে নিন মেয়েরা খেপে গেলে কতটা ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারে !! যা আপনার কল্পনাকে হার মানাবে

বিয়ের আগে অবশ্যই ভিডিওটি একবার হলেও দেখুন! বদলে যাবে আপনার দৃষ্টিভঙ্গী এবং আপনি পাবেন একজন আদর্শ জীবন সঙ্গী

বিয়ের আগে অবশ্যই ভিডিওটি একবার হলেও দেখুন! বদলে যাবে আপনার দৃষ্টিভঙ্গী এবং আপনি পাবেন একজন আদর্শ জীবন সঙ্গী।

মেয়েদের তুলনায় পর্নের দ্বারা বেশি প্রভাবিত হয় ছেলেরা (ভিডিওসহ)

হ্যালোটুডে ডটকম: মেয়েদের তুলনায় ছেলেরা পর্নের দ্বারা অনেক বেশি প্রভাবিত হয়ে থাকে। সম্প্রতি একটি সমীক্ষা চালিয়ে এই তথ্যটি জানতে পারা গেছে। ডেটিং-ভালবাসা-যৌনতা এবং পর্নের মধ্যে ছেলেরা সব সময় পর্নকেই সব থেকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে থাকে। এই সমীক্ষার দ্বারা আরও জানতে পারা গেছে, ছেলেরা একা নয়ত নিজের বান্ধবীর সঙ্গে বসে পর্ন দেখতে সব থেকে বেশি ভালবাসে। কিন্তু বন্ধুদের সঙ্গে পর্ন তারা খুব একটা দেখা পছন্দ করে না। সব থেকে মজার কথা হল, বেসিরভাগ ছেলেই পর্ন দেখে সেটা স্বীকার করতেই চায় না। তাদের মনের মধ্যে একটা অপরাধ বোধ কাজ করে। এমনকি সমীক্ষাতে দেখতে পাওয়া গেছে ছেলেরা ফ্যান্টাসির তুলনায় নির্দেশনা মূলক পর্ন ভিডিও দেখতেই সব থেকে বেশি পছন্দ করে।

ধর্ষণের পর স্কুলছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা, বৃদ্ধ আটক

সংবাদদাতা : ঢাকার ধামরাই উপজেলায় ৬০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষণের শিকার চতুর্থ শ্রেণির ওই ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পণ্ডিত আলী নামের ওই ব্যক্তিকে পুলিশে সোপর্দ করেন স্থানীয় লোকজন।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, উপজেলার আগজেঠাইল গ্রামের পণ্ডিত আলী প্রায় তিন মাস আগে নিজের অসুস্থ স্ত্রীকে দেখাশোনা করার জন্য ওই শিশুকে নিজের ঘরে রেখে দেয়। ওই রাতেই শিশুটিকে ধর্ষণ করে সে। বিষয়টি কাউকে না বলতে শিশুকে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি দেখায় পণ্ডিত আলী। স্কুলছাত্রী ভয়ে বিষয়টি কাউকে না বলে চুপ থাকে।

কয়েক দিন আগে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়লে পরিবারের লোকজন তাকে হাসপাতালে নেয়। এ সময় চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে শিশুটির অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার বিষয়টি তার পরিবারকে জানান। বিষয়টি জানাজানি হলে বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন স্থানীয় বাসিন্দারা। পণ্ডিত মিয়া এলাকা থেকে পালিয়ে যায়।

পরে আজ মঙ্গলবার সকালে ধামরাইয়ের কালামপুর বাজার এলাকায় স্কুলছাত্রীর ভাইসহ কয়েকজন পণ্ডিত মিয়াকে আটক করে। স্থানীয় লোকজন তাকে নিয়ে সালিশে বসেন। সালিশে ধর্ষণের ঘটনাটি রফা করতে পণ্ডিত আলীকে তিন লাখ টাকা জরিমানা করেন মাতবররা। কিন্তু পণ্ডিতের পরিবার এই রায় প্রত্যাখ্যান করে। এর পর সালিশের মাতবররাই পণ্ডিত আলীকে পুলিশে সোপর্দ করে।

ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল হক জানান, এ ঘটনায় শিশুটির বাবা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেছেন। পণ্ডিত আলীকে ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।